Sunday, July 14, 2024
More

    সর্বশেষ

    ক্রিকেটারদের সুরক্ষায় বিসিবি চালু করেছে বিশেষ অ্যাপ

    বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) কোভিড-১৯ মহামারিতে দেশের ক্রিকেটারদের স্বাস্থ্য ও মানসিক সুস্থতা জানার জন্য চালু করেছে ‘কোভিড-১৯ ওয়েলনেস’ (Covid-19 Wellness) অ্যাপ।এই অ্যাপের মাধ্যমে ক্রিকেটারদের বর্তমান অবস্থার তথ্য জানতে পারবে বিসিবি। অনুশীলন ও ক্রিকেটে ফিরতে এই অ্যাপ থেকে পাওয়া ডাটা কাজে লাগবে। এজটেন নামের এক সফটওয়্যার কোম্পানির সহায়তায় এই অ্যাপ তৈরি করা হয়েছে।

    জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফী বিন মর্তুজার পর করোনা আক্রান্ত বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপু ও সাবেক ওপেনার নাফীস ইকবাল। চিন্তিত বিসিবি ক্রিকেটারদের সুরক্ষায় নিয়েছে বিশেষ উদ্যোগ। বিশেষ অ্যাপ ‘কোভিড-১৯ ওয়েলনেস’ এর মাধ্যমে জাতীয় দল, নারী দল ও অনূর্ধ্ব ১৯ দলের ক্রিকেটারদের স্বাস্থ্যঝুঁকি পর্যবেক্ষণ করবে বোর্ড। নির্দিষ্ট প্রশ্নের উত্তর দিবেন ক্রিকেটাররা, যা বিশ্লেষণ করবে বিসিবির ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম টিম।

    করোনাকালে ক্রিকেটারদের সঙ্গে দূরত্ব কমাতে চায় বিসিবি। তাই বিশেষ অ্যাপের আওতায় আনা হচ্ছে জাতীয় দল, নারী দল এবং অনূর্ধ্ব ১৯ দলের ক্রিকেটারদের। অ্যাপের আওতায় ক্রিকেটারদের কাছ থেকে নানা প্রশ্নের উত্তর জেনে নেবে বোর্ডের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন টিম। উপাত্ত বিশ্লেষণের মাধ্যমে ক্রিকেটারদের স্বাস্থ্য ঝুকি পর্যালোচনা করা হবে। আপতত জাতীয় দল আর অনূর্ধ্ব ১৯ দল নিয়ে কাজ করলেও সময়ের সঙ্গে বাড়বে হেলথ অ্যাপের মাধ্যমে ক্রিকেটারদের পর্যবেক্ষণের পরিধি।

    ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের এক রাউন্ডের পর থেকে বাংলাদেশে কার্যত বন্ধ আছে সব ধরনের ক্রিকেটীয় কার্যক্রম। দিনদিন কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, বাতিল হচ্ছে একের পর এক সফর। সর্বশেষ নিউজিল্যান্ডের বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের শ্রিলংকা সফর স্থগিত হয়ে যাওয়ায় সেপ্টেম্বরের আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নেই আর বাংলাদেশের। ঘরোয়া ক্রিকেট কবে ফিরবে, অনিশ্চিত সেটিও।

    যে কোনও স্মার্টফোন বা স্মার্ট ডিভাইস থেকে এই অ্যাপ ব্যবহার করা যাবে। খেলোয়াড়রা প্রতিদিন কিছু প্রশ্নের উত্তর দেবেন, যেগুলো কোভিড-১৯ এর উপসর্গ এবং তাদের আচরণগত দিক সংশ্লিষ্ট। এসব প্রশ্ন বিসিবির মেডিকেল টিমের সঙ্গে মিলিয়ে সেট করা হয়েছে। এগুলো একটা নির্দিষ্ট সময় পর কেউ ঝুঁকিতে আছে কিনা, এই অ্যাপ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে কাউকে আলাদা করতে হবে কিনা সেসব বলবে। এটি কেন্দ্রীয়ভাবে নিয়ন্ত্রিত একটি পদ্ধতি, ফলে প্রাপ্ত তথ্য জরুরীভিত্তিতে খুব দ্রুত কাজে লাগানো যাবে।

    খেলোয়াড়দের অনুশীলন, কার কার সংস্পর্শে এসেছেন সেটির তথ্য পাওয়া, সন্দেহভাজন কারও জন্য পরামর্শ, এমনকি প্রয়োজন পড়লে আইসোলেশন বা চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে। খেলোয়াড়দের কাছ থেকে পাওয়া ফিডব্যাক এই অ্যাপে থাকা লাল, কমলা ও সবুজ রঙের ক্যাটাগরিতে ভাগ করে পর্যবেক্ষণ করা হবে। অনুশীলনের সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হবে সেভাবেই। কেউ যদি ‘রেড’ ক্যাটাগরিতে থাকেন, তাহলে সংশ্লিষ্ট বিসিবি কর্মকর্তা সঙ্গে সঙ্গেই জানতে পারবেন। 

    সর্বশেষ

    পড়েছেন তো?

    Stay in touch

    To be updated with all the latest news, offers and special announcements.