Thursday, June 13, 2024
More

    সর্বশেষ

    বিশ্বব্যাপী ৭০ কোটি মোবাইল ডিভাইস ব্যবহারকারীর রেকর্ড ছুঁল হুয়াওয়ে

    টেকভিশন ডেক্স: মোবাইল সার্ভিস ইকোসিস্টেম এবং অ্যাপগ্যালারির সর্বশেষ আপডেট দিয়েছে বিশ্বেও শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। সম্প্রতি ১৯তম চীন ইন্টারনেট সম্মেলনে জানানো হয়, বিশ্বব্যাপী মোবাইল সার্ভিস ইকোসিস্টেমের ব্যবহার খুব দ্রুত বাড়ছে। বর্তমানে সারাবিশ্বে ৭০ কোটির বেশি হুয়াওয়ে ডিভাইস ব্যবহারকারী রয়েছেন যা গতবছরের তুলনায় ৩২ ভাগ বেশি।

    সম্মেলনে থেকে আরো জানানো হয়, হুয়াওয়ের নিবন্ধিত ডেভলপার এখন ১৬ লাখে পৌঁছেছে যা আগের বছরের চেয়ে ৭৬ ভাগ বেশি। আর ৮১ হাজারের বেশি ইনোভেটিভ অ্যাপ্লিকেশন সংযুক্ত করা হয়েছে হুয়াওয়ে মোবাইল সার্ভিস কোরে বা এইচএমএসে।

    সারাবিশ্বে মানুষের কাছে উন্নততর ডিজিটাল কানেকটিভিটি আনতে ত্রিশ বছরের বেশি সময় ধরে কাজ করে যাচ্ছে হুয়াওয়ে। হুয়াওয়ে বিশ্বাস করে ক্রমশ ডিজিটাল প্রযুক্তি দ্বারা পরিচালিত এই বিশ্বে কাউকেই সেবার বাইরে রাখা যাবে না। তাই গ্রাহকদের আরো ভালো সেবা দিতে ডেভেলপারদের অনবরত উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। এরই অংশ হিসেবে শাইনিং প্রোগামের অধীনে ডেভেলপারদের ১ বিলিয়ন ডলার প্রণোদনা দেওয়ার ঘোষণা হয়েছিল। এই প্রোগামের অধীনে এখন পর্যন্ত দশ হাজারের বেশি উদ্ভাবনী অ্যাপস নিয়ে কাজ হয়েছে।

    হুয়াওয়ে কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপের (সিবিজি) ক্লাউড সার্ভিসের সভাপতি ঝাং পিংয়ান বলেন, “১৭০টির বেশি দেশ এবং অঞ্চলে হুয়াওয়ের অফিসিয়াল অ্যাপ ডিস্ট্রিবিউশন প্লাটফর্ম অ্যাপগ্যালারি রয়েছে। অ্যাপগ্যালারির মাধ্যমে আমরা স্থানীয় ডিজিটাল উদ্ভাবন সারাবিশ্বে ছড়িয়ে দিচ্ছি। আমরা চাই আমাদের সহযোগীদের তৈরি প্রতিটি অ্যাপ ৭০ কোটি ডিভাইস ব্যবহারকারীর কাছে পৌঁছে যাক।”

    উল্লেখ্য, এইচএমএস অ্যাপ যেমন হুয়াওয়ে ভিডিও, হুয়াওয়ে মিউজিক এবং রিডার বর্তমানে আরো উন্নত সেবা দিয়ে বিভিন্ন দেশ-অঞ্চলে মানুষের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে।

    এছাড়া হুয়াওয়ে কুইক অ্যাপের মতো এমন আরো কিছু উদ্ভাবনী সেবা নিয়ে আসছে যা মানুষের ডিজিটাল লাইফ আরো সমৃদ্ধ ও সহজ করে তুলছে। ইন্সটলেশন-ফ্রি কুইক অ্যাপ কম মেমোরি ব্যবহারে ব্যবহারকারীদের ট্যাপ-টু-ইউজ এক্সপেরিয়েন্স দিচ্ছে। কুইক অ্যাপের মতো কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) দ্বারা পরিচালিত অ্যাবিলিটি বিশ্বব্যাপী গ্রাহকদের কনটেন্ট অ্যাবিলিটি, কার্ড অ্যাবিলিটি এবং অ্যাপ অ্যাবিলিটি’র মতো উচ্চ-মানসম্পন্ন সেবা দিয়ে যাচ্ছে।

    সেই সাথে এইচএমএস কোরের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী অংশীদার ও ডেভেলপারদের উদ্ভাবনে সাহায্য করার জন্য “চিপসেট-ডিভাইস-ক্লাউড” সেবা উন্মক্ত করা হয়েছে। এর মাধ্যমে ডেভেলপাররা হুয়াওয়ের মেশিন লার্নিং কিট, হাইএআই, এআর ইঞ্জিন ইত্যাদির মতো সেবা পাচ্ছেন। এইচএমএস কোর ৫.০ এখন বিশ্বব্যাপী পাওয়া যাচ্ছে। ভবিষ্যতে ‘ইউজার-এক্সপেরিয়েন্স’ বৃদ্ধির জন্য হুয়াওয়ের সফটওয়্যার এবং হার্ডওয়্যারেও এটি উন্মক্ত করা হবে। সবচেয়ে বড় ব্যাপার হলো, দক্ষতার সাথে কাজ পরিচালনার জন্য অ্যাপগ্যালারির মাধ্যমে হুয়াওয়ে বিশ্বের ৬৭টি অঞ্চলে ওয়ান স্টপ এবং পুরোদমে অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট সাহায্য দিয়ে যাচ্ছে।

    বর্তমানে বিশ্বের ছয়টি অঞ্চলে হুয়াওয়ে মোবাইল সার্ভিসেস সেন্টার খোলা হয়েছে। ডিজি এক্স ল্যাব, হুয়াওয়ে ডেভেলপার্স, ডেভেলপার ডে এবং আরো বহু সুযোগের মাধ্যমে স্থানীয় সেবাকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিচ্ছে। তাছাড়া হুয়াওয়ে সবসময় বিশ্বব্যাপী ডেভেলপারদের প্রযুক্তি ও অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এর মাধ্যমে উদ্ধাবনী কাজে উৎসাহ প্রদান করে থাকে।

    সর্বশেষ

    পড়েছেন তো?

    Stay in touch

    To be updated with all the latest news, offers and special announcements.