Saturday, May 18, 2024
More

    সর্বশেষ

    বাক্কোর ‘‘বাক্কো অনলাইন প্রফেশনাল ফোরামের’’ যাত্রা

    দেশের বিপিও/আউটসোর্সিং শিল্পের বাণিজ্য সংস্থা বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বাক্কো) বিপিও খাতের উন্নয়ন এবং সম্প্রসারনের উদ্দেশ্যে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন ধরনের উদ্যোগ নিচ্ছে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে বিপিও শিল্পে অনলাইন প্রফেশনালদের নিয়ে নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে কাজ করার উদ্দেশ্যে বাক্কো গঠন করেছে ‘‘বাক্কো অনলাইন প্রফেশনাল ফোরাম’’। বিপিও খাতের উন্নয়নে অনলাইন প্রফেশনালদের উদ্বুদ্ধকরণ, পরামর্শ ও প্রশিক্ষণ প্রদান, সচেতনতা বৃদ্ধি, নীতিগত ও প্রযুক্তিগত সহায়তা এবং ব্যক্তিপর্যায়ে থেকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপদান করাই হবে ফোরামটির মূল লক্ষ।

    গতকাল ২১ অক্টোবর (বুধবার ) অনলাইনে ‘বাক্কো অনলাইন প্রফেশনাল ফোরাম’র লোগো উন্মোচনের মাধ্যমে উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক। বিশেষ অতিথি ছিলেন আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম।সভাপতিত্ব করেন বাক্কো সভাপতি ওয়াহিদ শরীফ। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বাক্কোর পরিচালক রাশেদ নোমান। সঞ্চালনা করেন বাক্কোর সাধারন সম্পাদক তৌহিদ হোসেন। এ সময় বাক্কোর কার্যনির্বাহী কমিটির সকল সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

    দেশের প্রতিষ্ঠিত অনলাইন প্রফেশনালদের মধ্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জায়েদ কর্পোরেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও আব্দুল্লাহ জায়েদ, ইমরাজিনা টেকনোলোজিসের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ইমরাজিনা ইসলাম, এরিয়া৭১ এর প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও আহসান হাবিব, ভাইজার এক্স লিমিটেডের সিইও ফয়সাল মোস্তফা, দা সফট কিং লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও রিফায়েত রিফাত এবং আইসিআইটিপির প্রতিষ্ঠাতা শরীফ মো. শাহজাহান।

    জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক বলেন, বর্তমান সরকার আইসিটি খাতে বিভিন্ন পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। পরিকল্পনাগুলো বাস্তবে রূপ দেওয়াই সরকারের লক্ষ্য। সরকার আইসিটি খাতে তরুণদের প্রশিক্ষণ এবং কাজের বিভিন্ন রকম সুযোগ করে দিচ্ছে। যার ফলে আগামী কয়েক বছরের মধ্যেই দেশে প্রচুর কর্মসংস্থান এবং উদ্যোক্তার সৃষ্টি হবে এবং এই যাত্রায় অনলাইন প্রফেশনালদের ব্যাপক ভূমিকা থাকবে বলে আমি মনে করি।

    এন এম জিয়াউল আলম বলেন, সরকার বর্তমানে যুব সমাজকে প্রশিক্ষণ প্রদান করার জন্য তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় থেকে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। যা নতুন আইটি উদ্যোক্তা তৈরিতে যথেষ্ট ভূমিকা রাখবে এবং ফোরামটির মাধ্যমে এই কার্যক্রম আরও ত্বরান্বিত হবে।

    ওয়াহিদ শরীফ বলেন, দেশের তরুণদের একটি বিশাল অংশ বর্তমানে আউটসোর্সিং কাজের সঙ্গে যুক্ত। তাদের সবাইকে একসঙ্গে একটি প্লাটফর্মের সঙ্গে যুক্ত করা গেলে তাদের এবং সামগ্রিক আউটসোর্সিং শিল্পের উন্নয়ন হবে। এই প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেই আমাদের নতুন ফোরামটির উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। আমি সব অনলাইন প্রফেশনালদের অনুরোধ জানাই তারা যেন এই ফোরামের সঙ্গে যুক্ত হয়ে ইন্ডাস্ট্রির উন্নয়নে এগিয়ে আসেন। খুব শীঘ্রই ফোরামটি অনলাইন প্রফেশনালদের উন্নয়ন এবং উদ্যোক্তা তৈরিতে বিভিন্ন কার্যক্রম ঘোষণা করবে।

    সর্বশেষ

    পড়েছেন তো?

    Stay in touch

    To be updated with all the latest news, offers and special announcements.